বাংলাদেশ চলচ্চিত্র উন্নয়ন কর্পোরেশন গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকার
মেনু নির্বাচন করুন
Text size A A A
Color C C C C
সর্ব-শেষ হাল-নাগাদ: ৯ ডিসেম্বর ২০১৪

অভিনেতা খলিল উল্লাহ খান আর নেই


প্রকাশন তারিখ : 2014-12-09

পাঁচ দশকেরও বেশি সময় বাংলাদেশের চলচ্চিত্র অভিযাত্রার সঙ্গে থেকে চিরবিদায় নিলেন অভিনেতা খলিল উল্লাহ খান

রোববার বেলা ১১টার দিকে রাজধানীর স্কয়ার হাসপাতালে গুণী এই শিল্পী শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন। তার বয়স হয়েছিল ৮০ বছর। ৫৪ বছর ধরে প্রায় আটশ’ সিনেমায় অভিনয় করেছেন খলিল, তবে এর শুরুটা হয়েছিল টিভি নাটকের মধ্য দিয়ে। গত কয়েক বছর ধরেই ফুসফুস, লিভার ও কিডনির জটিলতায় ভুগছিলেন অভিনেতা খলিল। গুরুতর অসুস্থ অবস্থায় কয়েকবার হাসপাতালেও ভর্তি করতে হয়েছিল বলে জানান তার ছেলে মুসা খান। খলিলের মৃত্যুর খবরে দেশের চলচ্চিত্রসহ সাংস্কৃতিক অঙ্গনে নেমে আসে শোকের ছায়া। অভিনয় জগতের অনেকেই স্কয়ার হাসপাতালে ছুটে যান। অভিনেতা খলিলের মৃত্যুতে শোক জানিয়ে বিবৃতি দেন রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা তাৎক্ষণিকভাবে শোক জানান । গত ১০ মে জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠানে অসুস্থ অভিনেতা খলিলের হাতে সম্মাননা ক্রেস্ট তুলে দিয়েছিলেন প্রধানমন্ত্রী। তখন শেখ হাসিনা বলেছিলেন, “তার আজীবন চিকিৎসার দায়িত্ব আমি নিলাম। তিনি আমাদের অনেক দিয়েছেন। এখন তাকে দেওয়ার পালা।”হাসপাতাল থেকে প্রথমে খলিলের মরদেহ মোহাম্মদপুরের বাসায় নিয়ে যাওয়া হয়। সবার শ্রদ্ধা নিবেদনের জন্য বিকালে কফিন নিয়ে যাওয়া হয় এফডিসিতে। সেখানে জানাজা শেষে খলিলের মরদেহ আবার বাসায় ফিরিয়ে নেওয়া হয়। এশার নামাজের পর আরেকবার জানাজা শেষে নূরজাহান রোডে মোহাম্মদপুর কবরস্থানে তাকে দাফন করা হয়।

এফডিসির জহির রায়হান কালার ল্যাব চত্বরে খলিলের কফিনে শেষ শ্রদ্ধা জানান তার দীর্ঘদিনের সহকর্মীরা। তথ্যমন্ত্রী হাসানুল হক ইনুও উপস্থিত হন সেখানে। মন্ত্রী সাংবাদিকদের বলেন, “তিনি ছিলেন একজন নিবেদিতপ্রাণ জাতশিল্পী। রাষ্ট্র থেকে যে ধরনের সহযোগিতা ও সম্মান তাকে দেওয়া প্রয়োজন ছিল, আমরা সেই সম্মানটুকু তাকে দিতে পেরেছি।” তরুণ প্রজন্মের জন্য খলিল অভিনীত চলচ্চিত্র ও টেলিভিশন নাটকগুলো আর্কাইভ আকারে সংরক্ষণের জন্য যথাযথ কর্তৃপক্ষকে আহ্বানও জানান তিনি।

হাসপাতাল থেকে প্রথমে খলিলের মরদেহ মোহাম্মদপুরের বাসায় নিয়ে যাওয়া হয়। সবার শ্রদ্ধা নিবেদনের জন্য বিকালে কফিন নিয়ে যাওয়া হয় এফডিসিতে।

 


Share with :
Facebook Facebook